Menu Close

বাংলাদেশে ভ্রমন নিয়ে যত কথাঃ কোথায় ভ্রমনে যাবেন আর কেনো যাবেন

ভ্রমন কথাবাংলাদেশে ভ্রমন নিয়ে যত কথা

ভ্রমন নিয়ে যদি কথা বলতে চাইলে একটা মনের মধ্য থেকে বেরিয়ে আসে, “সময় গেলে সাধন হবে না”। আসলেই জীবন কত অদ্ভুত, তাই না? যখন টাকা থাকেনা তখন চরম ইচ্ছে থাকে। কিন্তু যখন টাকা থাকবে বয়স হয়ে যাবে, তখন বয়সের ভারে কোথাও যাওয়া হবে না। জীবন খুবই সংকীর্ণ; জীবনের ইচ্ছে-আশা থাকবেই। আমার তো আছে। বিশেষ করে ঘুরবার নেশা। কিন্তু টাকা নেই।

ভীষণ ইচ্ছে আমার দেশ বিদেশ ঘুরবার অপেক্ষা করছি শুধু কবে একটা চাকরি পাবো। এই আশায় সকল ইচ্ছে গুলি কে দমিয়ে রেখেছি, আমার রুম থেকেই দেখা যায় বিশাল এক বাশ ঝাড়। আমি দেখি যখন বাতাস বয় পাতা গুলি এত শব্দ করে ঝন ঝন করে উড়তে থাকে। আমি মুগ্ধ হয়ে দেখি আর অনুভব করি। হারিয়ে যায় মনটা কবে বেরি য়ে পড়বো আর প্রকৃতির স্বাদ গ্রহন করবো।যখন ছাদে যাই তখন যতদূর চোখ যায় অপলক চোখে তাকিয়ে থাকি। কেন জানি উদাসি হয়ে যাই। মনে হয় যদি বাহিরে যেতে পারতাম তবে নিজের সব দুঃখ গুলিকে উড়িয়ে দিয়ে আসতে পারতাম আর ফ্রেশ হতাম। যাইহোক চলুন জেনে নেই আমরা কেন ঘুরতে যাবোঃ

ব্যক্তি জীবনে ভ্রমনের গুরত্ব

প্রথমত, আমি যেইটা বলবো মন টাকে ফ্রেশ করতে ট্রাভেলের বিকল্প নেই। আমরা কত রকমের শারীরিক, মানসিক জড়তার মধ্য দিয়ে যাই, যদি আমরা ট্রাভেল করি তবে মন ফ্রেশ হবে, আপনি আবার মেনটালি এবং ফিজিক্যালি ফিট হয়ে যাবেন।

নতুন কোন জায়গা তে গিয়ে তার ফুল ফিলং নেওয়া, নতুন জায়গা সম্মন্ধে জানা, পরিচিত হওয়া, তাদের ভাষা,সংস্কৃতি বিভিন্ন কালচার আপনি জানবেন বা পরিচিত হবেন তখন অনেক ভাল লাগবে এবং আপনি অন্যদের থেকে অনেক এগিয়ে থাকবে। দেশ বা বিদেশের সংস্কৃতি জানার কোন বিকল্প নেই।

ভ্রমন কেনো দরকারঃ

  • আপনি ট্রাভেল করতে গিয়ে যা জানতে পারবেন তা আপনার পরবর্তী লোকদের সেইসব জায়গা নিয়ে কথা বলতে পারবেন। এতে করে তারাও ভ্রমনে ইন্সপায়ারড হবেন। মানুষ যত ঘুরবে বা ভ্রমন করবে তত বিনয়ী হবে। মানুষ হিসেবে সমৃদ্ধি বাড়বে।
  • একঘেয়ে জীবন থেকে মুক্তি পাবেন। একঘেয়ে জীবন কারো’ই ভাল লাগে না, তাই ভ্রমনের বিকল্প কিছু নেই।
  • বাঁশের নল দিয়ে পুরো আকাশ কে দেখা যায় না-এটা একটি জাপানি প্রবাদ। আসলেই ঠিক কত বেড়িয়ে পড়ুন আর বিশ্ব কে কাছে থেকে দেখে এবং অনুভব করে আসুন

চাকরি আপনার পকেট পূরণ করে কিন্তু ভ্রমন আপনার আত্না পূরণ করে -বলেছেন জ্যামি লিন বিটি। নিশ্চয়ই তিনি ঠিক কথা বলেছেন। চাকরি বাকরি তো অনেক করেছেন অনেক টাকা ইনকাম করেছেন তবুও আপনার আত্না বুঝে দেখেন নিজের সাথে অতৃপ্তই রয়ে গেছে। আর যদি ভ্রমনে যেতেন আপনার আত্না নয় শুধু আপনার মন মানসিকতা  থেকে শুরু করে সব দিক থেকে আপনি ফ্রেশ অনুভব করতেন এবং সমৃদ্ধ হতেন।

জীবন অনেক ছোট তাই ভ্রমনের কোন জুড়ি নেই। যত ঘুরবেন তত আত্ন বিশ্বাস বাড়বে। যত বাধা বা কষ্টই আসুক না কেন তা আপনি পাহাড়ের মত সচল থেকে সেগুলা মোকাবেলা করতে পারবেন।

বাংলাদেশে ভ্রমনের জন্য গুরত্বপূর্ন জায়গা

আকোর হ্যা অবশ্যই থাও ভ্রমন করার আগে সেই জায়গা নিয়ে প্লান পরিকল্পনা করে বের হতে হবে। জায়গা সম্মন্ধে জানতে হবে। বাংলাদেশে আপনি বিখ্যাত টুরিস্ট স্পট সম্পর্কে জানেন কি? বিখ্যাত টুরিস্ট স্পট গুলোর মধ্য অন্যতম স্পট গুলির মধ্য ছয়টি বিখ্যাত স্পট হলঃ

  1. কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকত
  2. কক্সবাজার
  3. সেন্ট মার্টন
  4. সিলেট
  5. বান্দরবন
  6. খাগড়াছড়ি

এইসব জায়গা কেন এবং কিসের জন্য বিখ্যাত আসুন জেনে নেইঃ

কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকত

দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে অবস্থিত বৃহৎ সমুদ্র সৈকত ও পর্যটনকেন্দ্রটি হচ্ছে কুয়াকাটা। কুয়াকাটাইয় যেসব স্থান গুলি দর্শনীয়, তা হলঃ

  • কুয়াকাটার কুয়া
  • ফাতরার বন
  • সীমা বৌদ্ধ মন্দির
  • পায়রা নদীর ইলিশ।
  • সোনার চর।
  • কুয়াকাটা কাঠের নৌকা।

এই স্থান গুলো গুরত্বপূর্ন।

কক্সবাজার যেসব কারণে বিখ্যাত

১২০ কি.মি দীর্ঘ কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের যেসব জায়গায় পর্যটকদের আনাগোণা সবচেয়ে বেশি থাকে তার মধ্যে লাবনী, সুগন্ধা ও কলাতলী সী বিচ পয়েন্ট অন্যতম।

তাছাড়াও আপনি হিমছড়ি,র‍্যাডার স্টেশন,হিলটপ সার্কিট হাউস,লাইট হাউস,হ্যাচারি টাউন প্যাগোড়া,ঝিনুক মার্কেট,দুলা হাজরা সাফারি পার্ক সহ আরো অনেক অনেক আকর্ষণীয় জায়গা।

সেন্টমার্টন

যারা শুধু সমুদ্রের নীল পানি আর নিরিবিলি সময় কাটাতে চান তাদের কাছে পছন্দের জায়গা সেন্টমার্টিন। এখানে গিয়ে আপনি যেসব স্থান দর্শন করতে পারবেনঃ টেকনাফ সমুদ্র সৈকত, গর্জন বাগান,মারিস বুনিয়া সমুদ্র সৈকত, ছেঁড়া দ্বিপ,সেন্টমার্টন দ্বিপ,নাফ নদী।

সিলেট

উত্তর-পূর্বে অবস্থিত অপরূপ প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ভরপুর সিলেটে বিভিন্ন আদিবাসী, পাহাড়, ঝর্ণ্‌ মাজার, বিমানবন্দর, চা বাগান সহ রয়েছে আরো অনেক দর্শনীয় স্থান যা আপনাকে আকর্ষক করবে।

বান্দরবান

পছন্দের তালিকায় শীর্ষে রয়েছে  চোখজুড়ানো প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের অধীকারি পার্বত্য-জেলা বান্দরবান। এখানকার বিভিন্ন স্থানের কথা উল্লেখ করেছেন অনেকে। পাহাড়, নদী, ঝর্ণা এবং সবুজ এসব কিছু মিলিয়ে অনেকের প্রিয় পার্বত্য এই জেলা।

খাগড়াছড়ি

বাংলাদেশের পার্বত্য আরেকটি জেলা খাগড়াছড়ি। এই স্থানটি রয়েছে পর্যটকদের পছন্দের তালিকায়। নদী, পাহাড়, রাবার বাগান, আলুটিলা সুড়ঙ্গ, রিছাং ঝর্ণা দেখতে অনেকেই যান এখানে।

জীবনে ভ্রমনের কোন বিকল্প কিছু আর নেই। আজ থেকে বিশ বছর পর আপনি এইভেবে হতাশ হবেন যে, আপনার পক্ষে যা করা সম্ভব ছিল তা করতে পারেন নি। তাই নিরাপদ আবাশ ছেড়ে বেরিয়ে পড়ুন ভ্রমনে। আবিষ্কারের জন্য যাত্রা আর নতুন স্বপ্ন দেখুন আর শেষ মেষ আবিষ্কার করুন বলেছেন মার্ক টোয়েন।

 

Related Posts